Nazimb2.ML

Know for sharing | Bangladeshi first mobile based tech forum and community

Sunday, 28 July 2019

ফোনে আগুন লাগলে ভুল করেও করবেন না এই কাজ


সম্প্রতি একটি ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়েছে যেখানে এক ব্যক্তির ফোনে হঠাৎ আগুন ধরে যায়। ভারতেও এইধরণের ঘটনা আকছার ঘটে। এই ভিডিওতে একজন টেকনেশিয়ান iPhone 5s এর ফোলা ব্যাটারি পরিবর্তন করার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু সে ভুল করে ব্যাটারি পাংচার করে ফেলে এবং ফোনে আগুন ধরে যায়। যদিও ভাগ্যগুনে ওই টেকনিশিয়ান বেঁচে যায়।
ওই টেকনিশিয়ান আগুন ধরার পর ডিভাইসটি মাটিতে ছুঁড়ে ফেলে এবং জুতো দিয়ে চেপে ধরে। তবে ওনার ভাগ্য ভালো যে ওই ডিভাইসটি দ্বারা তার জুতোতে আগুন ধরে যায়নি। এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে আপনি সকল প্রকারের পরিস্থিতির জন্য প্রস্তুত আছেন এবং আপনি জানেন স্মার্টফোনে আগুনে ধরলে কি করতে হবে। ফোনে আগুন ধরলে নিচে দেওয়া এই ভুলগুলো অনেকেই করে ।
– পায়ে পরা জুতো থেকে ডিভাইসে আগুন নিভানোর চেষ্টা করা।
– ফোনের উপর কম্বল বা অন্য কাপড় চাপিয়ে দেওয়া।
– ফোনের উপর জল ঢেলে দেওয়া হয়।
– ফোনের আশপাশে থাকা সমস্ত জ্বলনশীল পদার্থ শেষপর্যন্ত জ্বলতে দেওয়া।
আমরা খালি চোখে স্মার্টফোনকে একটি ছোট পাওয়ারপ্যাকের মতো দেখলেও এর লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি প্রায় 600 ডিগ্রি সেলসিয়াসে জ্বলে। এই ধরণের ব্যাটারি জ্বলে উঠলে ভুল করেও পা বা জুতো দিয়ে চেপে ধরা উচিত নয়। এটি সহজেই যেকোনো আসবাবে ধরে যেতে পারে। 600 ডিগ্রী তাপমাত্রায়, অ্যালুমিনিয়াম গরম হয়ে লাল হয়ে যায় এবং 660 ডিগ্রিতে এটি গলতেও শুরু করে।
এই অবস্থায় কি করবেন?
যদি ডিভাইসে হঠাৎ আগুন লাগে তবে এটি ধাক্কা দিতে কোনও ধাতব বা রড ব্যবহার করুন। চেষ্টা করুন ডিভাইসটির পাশে যেন এমন কোনো কিছু না থাকে যেটিতে আগুন ধরে যেতে পারে। এছাড়াও, এর ধোঁয়া একেবারেই নাকের মধ্যে আসতে দেবেন না এবং আপনার মুখটি ভালোভাবে ঢেকে রাখুন কারণ ডিভাইসের ধোঁয়াশাটি বিষাক্ত হতে পারে। এগুলো করার পর একটি বোতল দিয়ে দূর থেকে ডিভাইসের উপর জল দিন আগুন না নেভা পর্যন্ত।

বাজারের সেরা 5 টি ফোন কেনার সুযোগ দিতে ফ্লিপকার্ট আনলো রবিবারের মহা সেল


ই-কমার্স ফ্লিপকার্ট, Super Flash Sale Sunday আয়োজন করলো। নাম শুনেই বোঝা যাচ্ছে এই সেল রবিবারের (28 জুলাই) মহা ফ্ল্যাশ সেল হতে যাচ্ছে। ফ্লিপকার্টের এই ধামাকা সেলে এই মুহূর্তে বাজার গরম করে রাখা 5 টি ফোন ফ্ল্যাশ সেলে পাওয়া যাবে। এই পাঁচটি ফোন হলো- Redmi K20 Pro, Redmi K20, Realme X, Realme 3i এবং Redmi 7A ।
এই সময়ে যারা নতুন ফোন কেনার কথা ভাবছেন তারা দেরি না করে আপনার পছন্দসই যেকোনো একটি ফোন কিনে নিতে পারেন। কারণ এই সেলে ফোনগুলোর উপর স্পেশাল অফার দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও পাবেন ব্যাঙ্ক অফার ও এক্সচেঞ্জ অফার। তো আসুন জেনে নেই এই ফোনগুলো আপনাকে কি কি ফিচার অফার করছে।
Redmi K20:
Redmi K20 Pro এর মতো এতেও ডুয়াল সিম সাপোর্টের সাথে অ্যান্ড্রয়েড 9 পাই ভিত্তিক MIUI 10 অপারেটিং সিস্টেম দেওয়া হয়েছে। এই ফোনে 6.39 ইঞ্চি এমোলেড ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে আছে। যার আসপেক্ট রেশিও 19.5:9 এবং স্ক্রিন রেজল্যুশন 1080 x 2340 পিক্সেল। এছাড়াও এতে পাবেন ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন 730 প্রসেসর, 6 জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং 128 জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ আছে।
Redmi K20 ফোনে ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা 48 মেগাপিক্সেল IMX586 সেন্সির, সেকেন্ডারি ক্যামেরা আলট্রা ওয়াইড সেন্সরের সাথে 13 মেগাপিক্সেল। এছাড়াও 8  মেগাপিক্সেল টেলিফোটো লেন্স দেওয়া হয়েছে।সামনের ক্যামেরার কথা বললে এই ফোনে 20 মেগাপিক্সেল পপ আপ সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। ফ্রন্ট ক্যামেরায় পোর্ট্রেট মোড় ফটো নেওয়ার জন্য AI এর সাহায্য নেওয়া হয়েছে । এছাড়াও ফোনে 18W ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি সহ 4,000mAh ব্যাটারি আছে।
Redmi K20 Pro :
এই ফোনে ডুয়াল সিম সাপোর্টের সাথে অ্যান্ড্রয়েড 9 পাই ভিত্তিক MIUI 10 অপারেটিং সিস্টেম দেওয়া হয়েছে। Redmi K20 Pro ফোনে 6.39 ইঞ্চি এমোলেড ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে আছে। যার আসপেক্ট রেশিও 19.5:9 এবং স্ক্রিন রেজল্যুশন 1080 x 2340 পিক্সেল। এছাড়াও এতে পাবেন ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর, কোয়ালকমের স্ন্যাপড্রাগন 855 প্রসেসর, 8 জিবি পর্যন্ত র‌্যাম এবং 256 জিবি পর্যন্ত স্টোরেজ আছে। আবার গ্রাফিক্সের জন্য এড্রেনো 640 ও পাওয়া যাবে।
ক্যামেরার কথা বললে Redmi K20 Pro ফোনে তিনটি রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। যার প্রাইমারি ক্যামেরা 48 মেগাপিক্সেল IMX586 সেন্সির, সেকেন্ডারি ক্যামেরা আলট্রা ওয়াইড সেন্সরের সাথে 13 মেগাপিক্সেল। এছাড়াও 8  মেগাপিক্সেল টেলিফোটো লেন্স দেওয়া হয়েছে। কোম্পানি দাবি করেছে এই ফোন লো লাইট ফোটোগ্রাফি ও 960fps এ স্লো মোশন ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। সামনের ক্যামেরার কথা বললে এই ফোনে 20 মেগাপিক্সেল পপ আপ সেলফি ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। ফ্রন্ট ক্যামেরায় পোর্ট্রেট মোড় ফটো নেওয়ার জন্য AI এর সাহায্য নেওয়া হয়েছে ।
Redmi K20 Pro ফোনে 27W ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি সহ 4,000mAh ব্যাটারি আছে। চারজিংএর জন্য এই ফোনে ইউএসবি টাইপ সি পোর্ট দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও 3.5 এমএম হেডফোন জ্যাক, ওয়াইফাই, ব্লুটুথ প্রভৃতি আছে।
Realme X :
Realme X এর ফিচারের কথা বললে এতে 6.53 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস AMOLED ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। কোম্পানির দাবি অনুযায়ী, এর স্ক্রিন টু বডি রেশিও 91.2 শতাংশ। রিয়েলমি এক্স ফোনে আপনি পাবেন কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন 710, 4/8 জিবি র‌্যাম ও 128 জিবি স্টোরেজ।
এই ফোনের পারফরমেন্স বুস্ট করার জন্য Hyper Boost 2.0 দেওয়া হয়েছে। এরফলে এই ফোনে গেম খেলার সময় সমস্যা হবেনা। সাউন্ড কোয়ালিটি ভালো করার জন্য এই ফোনে ডলবি অ্যাটমস প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। রিয়েলমি এক্স ফোনের সামনে আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্সের সাথে 16 মেগাপিক্সেল পপ আপ সেলফি ক্যামেরা আছে। ফ্রন্ট ক্যামেরায় Sony IMX471 সেন্সর দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ফোনের সামনে ইন ডিসপ্লে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর আছে।
আবার এই ফোনের পিছনে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা আছে। যার প্রাইমারি রিয়ার ক্যামেরা 48 মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি ক্যামেরা 5 মেগাপিক্সেল। রিয়ার ক্যামেরার ছবি ভালো করার জন্য Nightscape 2.0 মোডও দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও ফোনের সাথে VOOC 3.0 ফাস্ট চার্জিং সহ 3765mAh ব্যাটারি আছে।
Realme 3i :
Realme 3i এর ফিচারের কথা বললে এতে 6.22 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এই ফোনের সামনে নচ ডিসপ্লে আছে, আবার পিছনে ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর দেওয়া হয়েছে। ফোনটি শক্তিশালী মিডিয়াটেক হেলিও P60 প্রসেসর, 3/4 জিবি র‌্যাম ও 32/64 জিবি স্টোরেজের সাথে এসেছে।
ক্যামেরার কথা বললে এতে ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা সেটআপ আছে। যার প্রাইমারি সেন্সর 13 মেগাপিক্সেল এবং সেকেন্ডারি সেন্সর 2 মেগাপিক্সেল। আবার সেলফির জন্য 13 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে। এই ফোনে শক্তিশালী 4,230 এমএএইচ ব্যাটারি আছে। রিয়েলমি থ্রি আই অ্যান্ড্রয়েড 9 পাই ভিত্তিক Color OS 6 ইন্টারফেসে চলবে।
Redmi 7A :
ডিসপ্লে: ফোনটিতে আছে 5.45 ইঞ্চির 18:9 আসপেক্ট রেশিয়র আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে। ডিসপ্লেটি এইচডি + (720×1440 পিক্সেল) হবে।
প্রসেসর: এই ফোনটিতে আছে 1.95GHZ ক্লক স্পিডের কোয়ালকম স্নাপড্রাগনের 439 অক্টা কোর চিপসেট।
র‍্যাম ও স্টোরেজ: ফোনটি দুটি মডেলে এসেছে, 2 জিবি র‍্যাম + 16জিবি স্টোরেজ, 2জিবি র‍্যাম+ 32 জিবি স্টোরেজ।
ক্যামেরা: ফোনের পিছনে থাকবে 13 মেগাপিক্সেলের একটিমাত্র ক্যামেরা সেন্সর, সাথে থাকবে এলইডি ফ্লাশ। ক্যমেরাতে এআই ফিচার, পিডিএএফ ফাস্ট ফোকাস, এআই বিউটি, এআই ব্যাকগ্রাউন্ড ব্লার এর মতো গুরুত্বপূর্ণ ফিচার থাকছে। ফ্রন্ট ক্যামেরায় আছে 5 মেগাপিক্সেলের সেলফি সেন্সর।
ব্যাটারি: এই ফোনে আছে 4000mah এর ব্যাটারি, যা 10 ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করে।
অপারেটিং সিস্টেম: এই ফোনে অ্যান্ড্রয়েড 9 পাই এর সাহায্যে তৈরি করা মিইইউআই 10 অপারেটিং সিস্টেম আছে ।

এবার ‘স্পেশাল’ অফারের সাথে পাওয়া যাচ্ছে Vivo Z1 Pro


কিছু সপ্তাহ আগেই ভারতে লঞ্চ করা হয়েছে Vivo Z1 Pro। মূলত কম দামে ট্রিপল ক্যামেরা দেওয়ায় লঞ্চের পর থেকেই এই ফোনটি ব্যাপক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। তবে এতদিন ফোনটি কেবল ফ্লিপকার্ট থেকে ফ্ল্যাশ সেলে পাওয়া যেত। কিন্তু কোম্পানি এবার ফোনটি ওপেন সেলে বিক্রি করতে চাইছে। এর ফলে দিনের যেকোনো সময়ে এই ফোনটি আপনি কিনতে পারবেন। ভিভো জেড ওয়ান প্রো এর বিশেষ বিশেষ ফিচারের কথা বললে এতে পাবেন ইন ডিসপ্লে সেলফি ক্যামেরা, অক্টা কোর স্ন্যাপড্রাগন 712 প্রসেসর, 6 জিবি র‌্যাম ও ট্রিপল রিয়ার ক্যামেরা।
Vivo Z1 Pro স্পেসিফিকেশন :
এই ফোনে গেম মোড 5.0 এর সাথে 4D ভাইব্রেশন এবং 3D সারাউন্ড সাউন্ড পাওয়া যাবে। এতে পাবেন মাল্টি টার্বো ফিচার যেমন – Center Turbo, AI Turbo, Net Turbo, Cooling Turbo, and ART++ Turbo, যা ফোনের পারফরম্যান্স বাড়াবে। এতে ভয়েস চেঞ্জার এবং AI বাটনের মতো ফিচার দেওয়া হয়েছে।
ডুয়েল সিমের Vivo Z1 Pro ফোনে 6.53 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে, যার আসপেক্ট রেশিও 19.5:9 এবং পিক্সেল রেজ্যুলেশন 1080X2340 । ফোনটি অ্যান্ড্রয়েড 9 পাই ভিত্তিক ফ্যান্টম ওস 9 দ্বারা চলে।
এটি কোম্পানির প্রথম ফোন যেখানে পাঞ্চ হোল বা পিন হোল ডিসপ্লে দেওয়া হয়েছে। এর আগে Honor View 20, Samsung Galaxy M40, Motorola One Vision, Honor 20, 20 Pro প্রভৃতি ফোনে এই ডিসপ্লে ব্যবহার হয়েছিল। এই ফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন 712 প্রসেসর দেওয়া হয়েছে। স্টোরেজের কথা বললে ভিভো জেড ওয়ান প্রো 4/6 জিবি র‌্যাম এবং 64/128 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের সাথে আসছে।
Vivo Z1 Pro ভারতে দাম ও অফার:
ভারতে ভিভো জেড ওয়ান প্রো-র 4 জিবি র‌্যাম ও 64 জিবি স্টোরেজের দাম 14,990 টাকা। আবার 6 জিবি র‌্যাম এবং 64 জিবি স্টোরেজের দাম 16,990 দাম। এছাড়াও এই ফোনের আরেকটি ভ্যারিয়েন্ট 6 জিবি র‌্যাম ও 128 জিবি ইন্টারনাল স্টোরেজের দাম 17,990 টাকা।
লঞ্চ অফার হিসাবে ICICI ব্যাংক ক্রেডিট ও ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে এই ফোনটি কিনলে 750 টাকা ইনস্ট্যান্ট ক্যাশব্যাক পাওয়া যাবে। জিও গ্রাহকরা 6,000 টাকা বেনিফিট পাবে। যেখানে 150 টাকার 40 টি কুপন দেওয়া হবে। আবার ভোডাফোন আইডিয়া গ্রাহকরা 3,750 টাকা বেনিফিট পাবে।
এদিকে ফ্লিপকার্ট এক্সিস ব্যাঙ্ক ক্রেডিট কার্ড ও এইচডিএফসি ব্যাংকের ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে এই ফোনটি কিনলে 5 শতাংশ অতিরিক্ত ছাড় পাওয়া যাবে। এই ফোনের 128 জিবি ভ্যারিয়েন্টের উপর 17,900 টাকা পর্যন্ত এক্সচেঞ্জ অফার দেওয়া হচ্ছে। এর অর্থ আপনি যদি সম্পূর্ণ এক্সচেঞ্জ অফারের মূল্য পান তবে 90 টাকায় ফোনটি কিন্তু পারবেন।

পড়ুন : শক্তিশালী প্রসেসর ও প্রিমিয়াম ফিচারের সাথে Vivo Z1 Pro কম দামে ভারতে লঞ্চ হলো

অনেকটাই দাম কমলো Oppo A7 এর, জানুন নতুন দাম কত হলো


না স্মার্টফোন কোম্পানি অপ্পো তাদের কিছুমাস আগে লঞ্চ করা Oppo A7 এর দাম অনেকটাই কমিয়ে দিলো। মূলত সেল বাড়ানোর জন্যই কোম্পানি এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে খবর। এই ফোনে 13+2 মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও আছে 16 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা ও 4,230 এমএএইচ ব্যাটারি। আসুন এই ফোনটির নতুন দাম ও ফিচার জেনে নেই।
Oppo A7 নতুন দাম :
এই ফোনটির 3 জিবি র‌্যাম ও 32 জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টের দাম ছিল 13,990 টাকা। তবে এই ভ্যারিয়েন্টটি এখন 9,990 টাকায় পাওয়া যাবে। আবার 4 জিবি র‌্যাম ও 64 জিবি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টটির নতুন দাম হয়েছে 12,990 টাকা। যা আগে ছিল 16,990 টাকা।
Oppo A7 ফিচার :
ডিসপ্লে :
ওয়াটারড্রপ নচ ফিচারের সাথে আসা এই ফোনে 6.2 ইঞ্চি ফুল এইচডি প্লাস ডিসপ্লে আছে। ফোনটি দেখতে অনেকটাই রিয়েলমি 2 প্রো-র মতো। ডিসপ্লের আসপেক্ট রেশিও হলো 19:9 এবং স্ক্রিন-টু-বডি রেশিও 88.3 শতাংশ।
স্টোরেজ ও র‌্যাম এবং প্রসেসর :
Oppo A7 ফোনে কোয়ালকম স্ন্যাপড্রাগন 450 এসওসি চিপসেট প্রসেসর আছে।ফোনটি 32 জিবি /64 জিবি স্টোরেজ ও 3 জিবি / 4 জিবি র‌্যামের সাথে লঞ্চ  হয়েছে।মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর মেমরি 256 জিবি পর্যন্ত বাড়ানো যায়।
ক্যামেরা :
ওপ্পো A7 ফোনে 13+2 মেগাপিক্সেল ডুয়াল রিয়ার ক্যামেরা দেওয়া হয়েছে।এছাড়াও সেলফির জন্য 16 মেগাপিক্সেল ফ্রন্ট ক্যামেরা আছে।
ব্যাটারি :
অ্যান্ড্রয়েড 8.1 ওরিও অপারেটিং সিস্টেমের সাথে এই ফোন শক্তিশালী 4,230 এমএএইচ ব্যাটারির

ডার্ক মোড, স্লো মোশন ভিডিও সহ Samsung Galaxy A50 তে এলো নতুন আপডেট


দক্ষিণ কোরিয়ান কোম্পানি স্যামসাং তাদের গ্যালাক্সি A50 এর জন্য নতুন আপডেট নিয়ে আসলো। নতুন আপডেটে কোম্পানি ক্যামেরা অ্যাপের উন্নতি ছাড়াও আগের থেকে ইম্প্রুভড ওয়াই ফাই কানেক্টিভিটি দেবে বলে জানিয়েছে। এছাড়াও এই আপডেটে ফোনের সিকিউরিটি বাড়াতে অ্যান্ড্রয়েড জুলাই 2019 সিকিউরিটি প্যাচও পাওয়া যাবে।
গত মাসে পাওয়া গিয়েছিলো ডার্ক মোড:
কোম্পানি গত মাসের আপডেটে এই ফোনের জন্য নাইট মোড এবং QR code স্ক্যান ফিচার এনেছিল। এবার কোম্পানি A505FDDU2ASG4 বিল্ড নাম্বারে নতুন আপডেট আনছে।
ক্যামেরা এক্সপেরিয়েন্স আরো ভালো হবে :
নতুন আপডেট নিয়ে আসার পর কোম্পানি জানিয়েছে এই আপডেটে ক্যামেরার স্টেবিলিটি বাড়বে এবং আগের থেকে পিকচার কোয়ালিটি উন্নত হবে। এছাড়াও এবার থেকে গ্যালাক্সি A50 ইউজাররা স্লো মোশন ভিডিও রেকর্ড ফিচার পাবে।
190 এমবি আপডেট সাইজ :
নতুন আসা এই আপডেটের সাইজ 190 এমবি। এই আপডেট ডাউনলোড এবং আপডেট করার আগে, নিশ্চিত হয়ে নিন যে আপনার ইন্টারনেট সংযোগটি ভালো ভাবে কাজ করছে। ইনস্টলেশনের সময় ফোনের ব্যাটারি ফুল চার্জ রাখুন।

বিশ্বের সবচেয়ে শক্তিশালী প্রসেসরের সাথে আসছে শাওমির নতুন ফোন


চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি শাওমি আগামী 30 জুলাই লঞ্চ করবে গেমিং ফোন Black Shark 2 Pro । সম্প্রতি এই ফোনটিকে বেঞ্চ মার্ক সাইট AnTuTu তেও দেখা গেছে। কোম্পানি এই ফোনের একটি টিজার ভিডিও ও প্রকাশ করেছে। নতুন এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন 855 প্লাস প্রসেসর দেওয়া হবে। এই স্ন্যাপড্রাগন 855 প্লাস হলো বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত প্রসেসর। এইমুহূর্তে এই প্রসেসরের সাথে লঞ্চ হয়েছে কেবল একটি ফোন। আর তার নাম Asus ROG Phone 2 । 
টিজারে Black Shark 2 Pro এর ডিজাইন দেখা গেলেও ফিচার সম্পর্কে কিছু জানা যায়নি। এই ফোনটি দেখতে অনেকটাই Black Shark 2 এর মতোই হবে। এদিকে বেঞ্চমার্কের রিপোর্ট অনুযায়ী এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন 855 প্লাস প্রসেসর, এড্রেনো 640 GPU ও 12 জিবি র‌্যাম থাকবে । স্টোরেজের কথা বললে এতে পাবেন 256 জিবি পর্যন্ত ইন্টারনাল স্টোরেজ। ফোনটিতে অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে থাকবে অ্যান্ড্রয়েড 9 পাই।
স্ন্যাপড্রাগন 855 প্লাস এর বৈশিষ্ট্য:
কোম্পানির দাবি অনুযায়ী স্ন্যাপড্রাগন 855 প্লাস যেকোনো ফোনের জন্য সবচেয়ে শক্তিশালী প্রসেসর। গ্রাফিক্স রেন্ডারিংয়ের ক্ষেত্রে এটি স্ন্যাপড্রাগন 855 এর থেকে 13 গুন্ দ্রুত। এই প্রসেসর  5জি গেমিংয়ের জন্য উপযুক্ত। এতে গ্রাফিক্সের জন্য এড্রেনো 640 জিপিইউ দেওয়া হয়েছে । এটি সর্বাধিক ক্লক স্পিড 2.96 GHz দিতে সক্ষম এবং এই প্রসেসর 7nm প্রসেস প্রযুক্তির উপর তৈরী হয়েছে। এই প্রসেসরের সর্বাধিক ডাউনলোড স্পিড 2Gbps । এই প্রসেসরে 192 মেগাপিক্সেল পর্যন্ত সিঙ্গেল ক্যামেরা সাপোর্ট করে।

Saturday, 13 July 2019

এইচ এস সি আলিম পরীক্ষার ফলাফল 2019 প্রকাশ ১৭ জুলাই রেজাল্ট দেখুন ওয়েবসাইট

 

ইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ | আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯ 


এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং শিক্ষা বোর্ডের প্রেস রিলিজ এইচএসসি ফলাফ  ১৭ জুলাই 2019 এই দিনে সারা বাংলাদেশে এইচ এস সি ২০১৯ সালের ফলাফল প্রকাশ করা হবে।

রেজাল্ট আপনি সরাসরি এডুকেশন বোড ওয়েবসাইটে www.educationboardresults.gov.bd পেয়ে যাবে। রেজাল্ট আপনি ওয়েব সাইটে বা মোবাইলের মাধ্যমে জানতে পারবেন।





এইচএসসি রেজাল্ট ২০২৯ এই বছর এইচএসসি এক্সাম শুরু হয়েছে 1st April 2019 and শেষ হয়েছে 11thMay 2019.এই বছর প্রায় 12,18,628 ছাত্র এইচএসসি এক্সাম দিয়েছে।
এর মধ্যে  6,54,114 ছেলে এবং 5, 64,514 মেয়ে ।এবং বাংলাদেশে 10 টি শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ইনস্টিটিউশনের সংখ্যা 8,305।

এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ | আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯  

আমাদের দেশে এক্সাম শেষের ৩ মাসের মধ্যেই রেজাল্ট দেওয়া হয়। এই বছরে এইচ এস সি ও আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট জুলাই মাসে দেওয়া হবে। probable date is 17 th July. সকল এডুকেশন বোডের রেজাল্ট একি দিনে পাবলিশ করা হবে।   

10:00 টা পরে শিক্ষা মন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্পূর্ণ ফলাফল শীট হস্তান্তর করবেন। ফলাফলটি 2:00 টায় কলেজে পাওয়া যাবে, এবং অনলাইনেও পাওয়া যায়।

তার পর আপনি সরাসরি এডুকেশন এর অফিশিয়ালি ওয়েবসাইট আপনার রেজাল্ট দেখতে পারবেন ।   ওয়েব সাইটি হলো  
এবং মোবাইল এস এম এস এর মাধ্যমে ও আপনি রেজাল্ট দেখতে পারবেন।  

এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ | আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯  

বাংলাদেশে এইচ এস সি রেজাল্ট পাবলিশের নিয়ম 

বাংলাদেশ শিক্ষা মন্ত্রণালয় ও শিক্ষা বোর্ডের নিয়ম অনুযায়ী, এর ফলে 90 দিনের মধ্যে পরীক্ষার প্রকাশ করা হবে। এটিও ঘোষণা করা হয় যে 60 দিনের পরীক্ষার শেষ ফলাফল প্রকাশ করতে হবে।
এই নিয়ম অনুসরণ করে, এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের সবচেয়ে সম্ভাব্য তারিখ জুলাইয়ের শেষ সপ্তাহ। আপনি যদি পরীক্ষার তারিখটি 3 এপ্রিল 2019 সালের তারিখের সাথে অনুসরণ করেন তবে এটি তারিখের সাথে সম্পর্কিত। পরীক্ষা 13 মে 2019 তারিখে শেষ হয়েছে। প্রত্যেক তারিখ এবং সময় বিবেচনা করে এবং পূর্ববর্তী বছরের এইচএসসি ফলাফলের তারিখের সাথে, আমরা গণনা করেছি যে তারিখ 25 জুলাই 2019 তারিখ।
কিভাবে এইচ এস সি রেজাল্ট দেখবে 

তিনটি নিয়মে আপনি এইচএসসি রেজাল্ট দেখতে পারবেন। 
১.অনলাইনের মাধ্যমে।
২.মোবাইলে এস এম এস এর মাধ্যমে। 
৩.মোবাইলে এপ্স এর মাধ্যমে।
এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ | আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯  
   অনলাইনে এইচএসসি রেজাল্ট দেখার নিয়ম   

অনলাইনের মাধ্যমে রেজাল্ট দেখা খুবই সহজ। যদি আপনি এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ অনলাইনের মাধ্যমে দেখতে চান তাহলে সরাসরি নিচের ওয়েব সাইটে ডুকে যান।
এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯, আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯,









  • Select Examination Type


    • Then Select Board
    • Enter Roll and Registration Number
    • Enter the Captcha
    • Click on the Submit Button
    • Get the Result

    মোবাইলের মাধ্যমে এইচএসসি রেজাল্ট দেখার নিয়ম   

    আপনি যে কোন মোবাইল দিয়ে এস এম এস এর মাধ্যমে আপনার রেজাল্ট দেখতে পারবেন।  
    প্রথমে এস এম এস অপশনে গিয়ে টাইপ করুন HSC তারপর একটা Space দিন আপনার বোডের প্রথম ৩ অক্ষর দেন তারপর space তারপর HSC Roll number এবং আবার space দেন এবং লিখুন Exam year তারপর send করুন 16222 নাম্ভারে।

    এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯ | আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯  

    The SMS format is given below-

    HSC/Alim first three letters of Board name Roll no 2019 Then Send it to 16222 Number
    আপনি বাংলাদেশের যে কোন সিম দিয়ে দেখতে পারবেন। 
    সকল এডুকেশন বোডের প্রথম ৩ অক্ষর নিম্ভে দেওয়া হলোঃ- 
    • Dhaka – DHA
    • Rajshahi – RAJ
    • Comilla -COM
    • Jessore – JES
    • Chittagong – CHI
    • Barisal – BAR
    • Sylhet – SYL
    • Dinajpur – DIN
    • Madrasah – MAD
    • Technical – TEC
    মোবাইলে এপ্স এর মাধ্যমে এইচএসসি রেজাল্ট দেখার নিয়ম  
    এটা একটা ডিফারেন্ট রেজাল্ট দেখার নিয়ম,এই নিয়মে রেজাল্ট দেখতে হলে নিচের লিংক এ ডুকে 
    এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯, আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯,

    ওয়েব এপ্সে ডুকে নিচের নিয়ম গুলো ফ্লো করে রেজাল্ট দেখতে পারবেন। 
    Individual Result: You can easily get a person’s result by entering the roll number and selecting the Year
    Institutional Result: Every Institution has a EIIN Number. By entering the EIIN Number you can download all the students HSC result of that institution
    Center Result: This type shows center result. Those who appeared exam in that center, all the candidate’s results can be downloaded
    District Result: Full result of the Districts. A
    Institution Analytics: It shows graph bar and data of the different institutions. Which helps you to find the result
    Board Analytics: It same as Institutional Analytics
    এইচ এস সি রেজাল্ট ২০১৯, আলিম পরীক্ষার রেজাল্ট ২০১৯,  
    সকল Education Bord এর লিংক নিচে দেওয়া হলো।

    1.Dhaka education board

    Thursday, 11 July 2019

    Messenger এর ডিলিট বা রিমুভ করে দেয়া ম্যাসেজ গুলো দেখবেন কিভাবে,দেখে নিন না দেখলে মিস।

    সবাই কেমন আছেন?আশা করি সবাই ভালো আছেন।আর আপনাদের দোয়ায় আমিও আলহামদুলিল্লাহ ভালো আছি।

    পোস্টেরর বিষয়ঃ

    উপরের টাইটেল দেখেই বুঝতে পারছেন আজকে কি বিষয় নিয়ে আলোচনা করতে যাচ্ছি।আজকে আপনাদের সামনে দারুন একটা পোস্ট নিয়ে হাজির হলাম।আজকে দেখাব আপনারা কি ভাবে messenger এ ডিলিট করে দেয়া বা রিমুভ করে দেয়া ম্যাসেজ কিভাবে দেখবেন।মনে করেন আপনার কোন পরিচিত কেউ আপনাকে কোন একটা ম্যাসেজ দিয়ে সাথে সাথে ডিলিট করে দিল এখন আপনি সেটা দেখে খুবই চিন্তিত যে কি ম্যাসেজ লিখছে বা লিখতে পারে যদি দেখতে পারতাম।ডিলিট করে দেয়া ম্যাসেজটি দেখার জন্য আপনার মন ছটপট করতেছে কিন্তু আপনার হাতে ট্রিক নেই কিভাবে দেখবেন।তো নো চিন্তা আমি আজকে দেখাব কিভাবে ওই ডিলিট করে দেয়া ম্যাসেজ গুলা দেখবেন।তো চলুন বেশি কথা না বলে মূল কাজে আসা যাক।

    পোস্ট না বুঝলে নিচের ভিডিও টা দেখতে পারেন,



    আপনারা ডিলিট করা ম্যাসেজ গুলো দেখতে পারবেন তখন থেকেই যখন থেকে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করে সেটি সেটিংস করে রাখবেন।প্রথমে নিচের লিংক থেকে অ্যাপটি ডাউনলোড করুন।

    এখানে ক্লিক করে অ্যাপটি ডাউনলোড করে নিন

    তারপর অ্যাপটি ওপেন করুন,এবং দেখানো জায়গায় ক্লিক করে টিক চিহ্ন দিয়ে continue লেখার উপর ক্লিক করুন।

    তারপর একটা পেজ আসবে সেখানে Enable Permission লেখার উপর ক্লিক করুন।

    তারপর পারমিশন দিয়ে দিন।

    তারপর Continue লেখায় ক্লিক করুন।

    আবার ENABLE PERMISSION লেখায় ক্লিক করুন।

    তারপর Allow যতবার চাবে দিয়ে দিন।

    তারপর একটা পেজ আসবে সেখানে Messenger সিলেক্ট করে নিচে continue লেখার উপর ক্লিক করে দিন।

    তারপর কাজ শেষ এখন থেকে যে কেউ ম্যাসেজ দিয়ে সাথে সাথে ডিলিট করলেও আপনারা ওই অ্যাপে গিয়ে দেখতে পারবেন যে সে কি ম্যাসেজ দিয়ে ডিলিট করে দিয়েছে।নিচে প্রুফ দেয়া হলো

    Sunday, 12 May 2019

    ইন্টারনেট Not working বা Data চালু হচ্ছেনা নিয়ে নিন সমাধান সকল সিমে [must see]

    আশাকরি অনেক ভালো আছেন
    আমি আপনাদের জন্য আজকে একটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে হাজির হয়েছি যেটা হইতো কেও কেও আগে থেকে জানেন আবার কেও কেও জানেন না ত্ব আজকের পোস্টটি যারা জানেনা তাদের জন্য

    ত্ব ভাইয়েরা চলুন শুরু করি
    Internet Not Working বা ডাটা চালু হচ্ছে না
    ★এইটা খুবই সাধারন একটি সমস্যা…অনেক সময় দেখা যায় Data চালু করি ঠিকই কিন্তু চালু হচ্ছে না বা উপরে H+ অথবা E কোনটাই আসছে না এর কারন হলো Configuration না থাকা…..
    আরেকটা কারন হলো সিম এর মেয়াদ উত্তীর্ন হয়ে গেলে….তাই দেখে নিবেন ব্যালেন্স চেক করে সিম এর মেয়াদ আছে কিনা
    না থাকলে নির্দিস্ট পরিমান Rechearge করলেই সমস্যাস সমাধান হয়ে যাবে
    আর Configuration না থাকা এমন টা হয় নতুন সিম লাগালে বা সিম খুলে আবার লাগালে..অনেক সময় সিম লাগালে অটোমেটিক হয়ে যায়..তবে কিছু ক্ষেত্রে হয় না সেক্ষেত্রে আমাদের manualy করতে হবে আর কিভাবে করতে হবে নিছে দেখিয়ে দিচ্ছি
    Grameenphone
    (auto)মেসেজ অপসন এ যান তারপর লিখুন all আর পাঠিয়ে দিন 8080 নাম্বারে
    (manual) settings এ যান mobile networks এ যান access point name থেকে add new তারপর নতুন একটি বানান
    name:grameenphone
    apn:gpinternet
    IP:010.128.001.002
    port:8080
    দিয়ে save করুন
    Banglalink
    (auto)একই নিয়মে all লিখে 3343 নাম্বারে পাঠিয়ে দিন
    (manual)একই নিয়ম
    name:bangalink
    apn:blweb
    IP:010.010.055.034
    port:8799 ★★★****

    Airtel
    (auto) Dial *121*6*1#
    (manual)একই নিয়মে
    name:airtel
    apn:internet
    ip:10.6.0.2
    port:8080
    ★★★★
    Robi:
    (auto) Dial *121*7*1#
    (manual) একই নিয়মে
    name:Robi
    apn:internet
    ip:192.168.023.007
    port:9201

    Teletalk:
    (auto) go to message option Type “SET” and send to 738
    (manaul) একই নিয়মে
    name: TT
    apn:wap তারপর সেভ দিয়ে দিন
    মেসেজ পাঠানোর পর কনফিগারেসন মেসেজ আসবে ইন্সটল করলেই automatic হয়ে যাবে pin code যদি চায় তাহলে 1234 দিবেন
    টিউনটি কেমন হয়েছে তা পুরোটাই আপনাদের উপর নির্ভর করবে। So, কমেন্ট বক্সে লিখে ফেলুন কেমন হয়েছে। আর একটা ধন্যবাদ প্রাপ্য থাকলাম। যদি না বুঝতে পারেন, ১০ বার জিগ্যেস করুন। সমাধান দিতে চেষ্টা করব। রাত জেগে টিউন লিখতে কষ্ট ফিল করি না, তাহলে Reply দিতে দ্বিধা করব কেন.!!
    আবারও ধন্যবাদ সবাই কে…

    ★★আজ এই পর্যন্তই, ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন
    ★★আল্লাহ হাফেজ★★

    Airtel এ ১২ টাকায় ১ জিবি ,মেয়াদ ৩০ দিন !!নতুন ভিপিএন এর সাহায্যে সবকিছু চালান !আজীবন মেয়াদি প্রিমিয়াম কনফিগ🍁💞

    জ আপনাদের কাছে নিয়ে আসলাম 5টি পেইড আজীবন মেয়াদি প্রিমিয়াম TLS Tunnel CONFIGURATION File
    M——————————————————————————-S
    এই ধরনের আপডেট আরো দ্রুত পেতে , নিচের চ্যাট গ্ৰুপে জয়েন দিন !!এখানে প্রতিদিন আপডেট কনফিগ+ভিপিএন দেওয়া হয় !!!তাই জলদি জয়েন দিন♥️
    ♥️♥️
    বা সরাসরি লিংক
    https://m.me/join/AbbcZRNf0obzNW33

    নিচের এপটি নামিয়ে নিন

    ↓TLS Tunnel(ডাউনলোড লিঙ্ক)↓


    HTML tutorial

     
    ♥️
    M——————————————————————————-S
    কনফিগ ফাইলগুলোর বিস্তারিত??
    সবগুলো প্রিমিয়াম একাউন্ট
    আজীবন মেয়াদি
    গেমিং, স্ট্রিমিং,ডাউনলোডিং,ভিডিও কলিং, ব্রাউজিং করা যাবে আরো দ্রুত
    ♥️
    এয়ারটেল এ যারা ১২ টাকায় ১ জিবি ৩০ দিন এর ফেসবুক প্যাক নিতে পারেন না ,তারা ১২ টাকা রিচার্জ করুন /*১২৩*০১২# ডায়াল করে নিন

    যেভাবে ফাইলগুলো Import করবেন…

    প্রথমে এপটিতে প্রবেশ করি

    তারপর এখানে ক্লিক করুন

    তারপর এখানে


    তো ফাইলগুলো কোন ফেল্ডারে রেখেছেন ,সেখানে যান

    এখন ফাইলটিতে ক্লিক করুন

    কানেক্ট করুন

    হয়ে গেলো🌹♥️☪️

    ৫টি কনফিগারেশন ফাইল ডাউনলোড লিঙ্ক

    ↓একসাথে ৫ টি ফাইল (ডাউনলোড লিঙ্ক)↓


    HTML tutorial

    Wednesday, 2 January 2019

    5 টাকায় 500mb 3g +500mb 4g offer যত খুশি তত বার নিন‍ ,#(এবং মেয়াদ 18 tk য় 28 দিন বৃদ্ধি করুন) Sazzadur Rahman Sazzadur Rahma


    প্রথমে My gp apps এ যান

    .
    .
    . .
    #(Offer)
    তার পর internet
    এর পর
    300 mb Facebook pack
    তার পর confirm
    28 day 18 tk
    দেখুন মেয়াদ বৃদ্ধি পেয়েছে

    Tuesday, 27 November 2018

    পাকিস্তানের সর্বকালের সেরা বোলিংয়ের কীর্তিতে ইয়াসির


    ম্যাচে ১৪ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন ইয়াসির শাহ। ছবি: এএফপিম্যাচে ১৪ উইকেট নিয়ে পাকিস্তানের পক্ষে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন ইয়াসির শাহ। ছবি: এএফপি
    প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও নিউজিল্যান্ডকে স্পিন-বিষে নীল করেছেন ইয়াসির শাহ। পাকিস্তানের ৫ উইকেটে ৪১৮ রানে ইনিংস ঘোষণার পর প্রথম ইনিংসে ৯০ রানে গুটিয়ে গিয়েছিল নিউজিল্যান্ড। এবার অবশ্য প্রতিরোধ গড়ে ৩১২ রান পর্যন্ত যেতে পেরেছে ফলোঅনের লজ্জায় পড়া কিউয়িরা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ইনিংস ব্যবধানেই জিতেছে পাকিস্তান
    পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর একটা বিশেষ ফোন কল আজ পেতেই পারেন ইয়াসির শাহ্‌। পাকিস্তানের পক্ষে টেস্টে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডে নাম লিখিয়েছেন, প্রধানমন্ত্রী শুধু এ কারণে ধন্যবাদ জানাবেন, তা কিন্তু নয়। ইয়াসির আজ এই রেকর্ডে যাঁর নামের পাশে বসেছেন, সেই ইমরান খানই যে এখন দেশটির প্রধানমন্ত্রী। দুবাই টেস্টে প্রথম ইনিংসে ৮ উইকেটের পর দ্বিতীয় ইনিংসে ইয়াসির নিয়েছেন ৬ উইকেট। ১৮৪ রান খরচে ম্যাচে ১৪ উইকেট তাঁর। ১৯৮২ সালে লাহোর টেস্টে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ১৪ উইকেট নিয়েছিলেন ইমরান, ১১৬ রান খরচায়। ইমরানের সেই কীর্তি ছোঁয়ার ম্যাচে পাকিস্তানকে ইনিংস ও ১৬ রানে জিতিয়েছেন ইয়াসির।
    এই টেস্টে নিউজিল্যান্ড হারতে চলেছে, তা অনেক আগেই নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল। কৌতূহল ছিল ইয়াসির কী করেন, তা নিয়ে। প্রথম ইনিংসে ‘একটুর জন্য’-র আক্ষেপে পুড়তে হয়েছে। ৮ উইকেট পেয়েছেন ঠিকই, কিন্তু পাকিস্তানের পক্ষে ইনিংসে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড করা হয়নি। আবদুল কাদির আর সরফরাজ নওয়াজের যে ইনিংসে ৯ উইকেট আছে। ইয়াসিরের সামনে তখন হাতছানি ছিল ম্যাচে পাকিস্তানের পক্ষে সেরা বোলিংয়ের রেকর্ড গড়ার। দ্বিতীয় ইনিংসে রেকর্ড ছুঁতে ৬টি আর ভাঙতে ৭টি উইকেট দরকার ছিল তাঁর।
    আগের দিন নিউজিল্যান্ডের ২ উইকেটের দুটোই তুলে নিয়ে ইয়াসির সম্ভাবনা আরও উজ্জ্বল করে তোলেন। যদিও নিউজিল্যান্ডও দারুণ প্রতিরোধ গড়ে তুলেছিল। ২ উইকেটে ১৩১ রানে দিন শেষ করে তারা। আজ দিনের সপ্তম ওভারে আগের দিনের অপরাজিত ব্যাটসম্যান ল্যাথামকে ফিফটির পরপরই হাসান আলী তুলে নেন। অন্য অপরাজিত ব্যাটসম্যান রস টেলর (৮২) আরও কিছুটা প্রতিরোধ করে ফিরে যান বিলালের বলে। টেলরের ক্যাচটা ইয়াসিরই ধরেন।
    দিনের ২ উইকেট পড়ে গেছে, তবু ইয়াসিরের উইকেটসংখ্যা বাড়েনি! ইয়াসির এবার ওয়াটলিংকে ফিরিয়ে ম্যাচে নিজের উইকেটসংখ্যা নিয়ে গেলেন ১১তে। কিন্তু গ্রান্ডহোম হাসান আলীর শিকার হলে শঙ্কা জাগে, ইয়াসিরের রেকর্ডটা হয়তো হচ্ছে না। দিনের প্রথম ৪ উইকেটের ৩টিই যে তাঁর নয়! নিউজিল্যান্ডের স্কোর তখন ৬ উইকেটে ২৭০। ইনিংস ব্যবধানে হারটা ভালোমতোই চোখ রাঙাচ্ছে। কিন্তু নিউজিল্যান্ডের চেয়ে বেশি টেনশনে তখন হয়তো ইয়াসিরই!
    রেকর্ড গড়তে হলে যে শেষ ৪ উইকেটের সবই তাঁর চাই। ইশ সোধিকে বোল্ড করে এক ডজন উইকেট পূরণ করেন। কিন্তু 'ঝামেলা' করে ফেলেন হাসান। পাঁচে নেমে একপ্রান্ত আগলে রাখা নিকোলসকে বোল্ড করে দিয়ে। রেকর্ড ভাঙা আর হচ্ছে না ইয়াসিরের, তখনই নিশ্চিত হয়ে যায়। সতীর্থদের কেউ আর এক উইকেট নিলে রেকর্ডও ছোঁয়া হবে না, এমন সমীকরণের সামনে তখন তিনি।
    ইয়াসির বেশি ঝামেলায় গেলেন না। শেষ দুই ব্যাটসম্যানকে একই ওভারে তুলে নিয়ে ফুটবলারদের মতো দৌড়ে ঘাসের জমিনে বুক পেতে দিলেন। ইমরান খানের পাশাপাশি পাকিস্তানের সেরা বোলিংয়ের রেকর্ডে নাম উঠে গেল ইয়াসিরের। এটা তাঁর প্রাপ্যই ছিল। আগের দিন ২১ বলের মধ্যে ৬ উইকেট নিয়েছিলেন, সারা দিনে নিয়েছেন ১০ উইকেট। ১৯৯৯ সালে অনিল কুম্বলে সর্বশেষ টেস্টের কোনো এক দিনে ১০ উইকেট পেয়েছিলেন। টেস্টে এক ইনিংসে ১০ উইকেট দ্বিতীয় নেওয়ার দ্বিতীয় কীর্তি সেটি। ইয়াসির দুই ইনিংস মিলিয়ে হলেও একই দিনে নিলেন ১০ উইকেট। দুবাই টেস্ট শেষ পর্যন্ত হয়ে গেল ইয়াসির শাহ্‌র টেস্ট।
    প্রথম টেস্ট মাত্র ৪ রানে হেরে যাওয়ার পর দলকে দারুণ এক জয় দিয়ে সিরিজে ফিরিয়ে আনলেন ইয়াসির। তৃতীয় টেস্ট হয়ে গেল সিরিজ নির্ধারণী।

    জিতেই শেষ ষোলোতে রিয়াল মাদ্রিদ

     
    রিয়ালের জয়ের দুই নায়ক। গ্যারেথ বেল (পেছনে) ও ভাসকেজ (সামনে)। ছবি: এএফপিরিয়ালের জয়ের দুই নায়ক। গ্যারেথ বেল (পেছনে) ও ভাসকেজ (সামনে)। ছবি: এএফপি
    চ্যাম্পিয়নস লিগে রোমার বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পেয়েছে রিয়াল মাদ্রিদ। রিয়ালের হয়ে একটি করে গোল করেন গ্যারেথ বেল ও লুকাস ভাসকেজ।
    প্রথমার্ধে রিয়াল মাদ্রিদ অনেক সুযোগ দিয়েছে রোমাকে। সেগুলোর একটিও কাজে লাগাতে পারেনি ইতালিয়ান ক্লাবটি। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই রিয়ালকে উপহার দেয় রোমা। সেটা সানন্দে গ্রহণ করে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। শেষ পর্যন্ত ২-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ।
    এ নিয়ে রিয়ালের বিপক্ষে ১২ ম্যাচের একটিতেই নিজেদের জাল অক্ষত রাখতে পেরেছে রোমা। তাও সেটা ২০০২ সালের অক্টোবরের কথা। অ্যাওয়ে ম্যাচটি রিয়াল হেরেছিল ১-০ গোলের ব্যবধানে। আর চ্যাম্পিয়নস লিগে এর আগে রোমার বিপক্ষে শেষ পাঁচটি ম্যাচের চারটিতেই জিতেছিল রিয়াল মাদ্রিদ। ২০০৮ সালের ফেব্রুয়ারিতে ম্যাচটি রিয়াল হেরেছিল ২-১ গোলের ব্যবধানে।

    লিগে নিজেদের শেষ ম্যাচে দুই দলই হেরেছে। লা লিগায় রিয়াল মাদ্রিদ এইবারের বিপক্ষে ৩-০ গোলের ব্যবধানে বাজেভাবে হেরেছিল। আর রোমা ১-০ গোলে পরাজয় বরণ করেছিল উদিনেসার বিপক্ষে।
    মঙ্গলবার রাতে চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচটিতে গোলের অনেক সুযোগ পেয়েছে রোমা। নিজেদের মাঠে সেগুলোর একটিও কাজে লাগাতে পারেনি স্বাগতিকেরা। উল্টো ম্যাচের ৪৭ মিনিটে রোমার ডিফেন্ডার ফাজিওর শিশুসুলভ ভুলে পিছিয়ে পড়ে স্বাগতিকেরা। রোমার আর্জেন্টাইন এই ডিফেন্ডারের হেড বেলের সামনে গিয়ে পড়ে। গোলরক্ষককে ফাঁকি দিতে মোটেও ভুল করেননি বেল।

    এর আগে প্রথমার্ধের প্রায় পুরোটা সময় এলোমেলো রক্ষণের পসরা সাজিয়ে বসেছিল সোলারির শিষ্যরা। কিন্তু রিয়ালের দুর্বল রক্ষণের সুযোগ কাজে লাগাতে পারেনি রোমা। যদিও দুর্দান্ত কিছু সেভ করে রিয়ালকে রক্ষা করেন গোলরক্ষক কোর্তোয়া।

    পিছিয়ে পড়া রোমা দ্বিতীয়ার্ধে আর খেলায় ফিরতে পারেনি। বরং রিয়াল দ্বিতীয়ার্ধে এসে নিজেদের গুছিয়ে নেয়। বেলের মাপা শটে মাথা ছোঁয়ান বেনজেমা। গোলপোস্টের সামনে থাকা ভাসকেজের সামনে বল পড়ে। বলের গায়ে ঠিকঠাক ঠিকানা লিখে দেন রিয়ালের স্প্যানিশ এই তারকা। জয় দিয়েই শেষ ষোলো নিশ্চিত করল রিয়াল মাদ্রিদ। যদিও হেরেও নকআউটে উঠেছে রোমা।

    বিএনপি জোটের মনোনয়ন পেলেন জামায়াতের যে নেতারা


    আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে ২০ দলীয় জোটের শরিক জামায়াতে ইসলামীকে ২৫টি আসন দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে ২০ দলীয় জোট সূত্রে এই খবর জানা গেছে।
    মনোনয়নপ্রাপ্তরা হলেন:
    আব্দুল হাকিম (ঠাকুরগাঁও-২), মোহাম্মদ হানিফ (দিনাজপুর-১), আনোয়ারুল ইসলাম (দিনাজপুর-৬), মনিরুজ্জামান মন্টু (নীলফামারী-২), আজিজুল ইসলাম (নীলফামারী-৩), গোলাম রব্বানী (রংপুর-৫), মাজেদুর রহমান সরকার (গাইবান্ধা-১), রফিকুল ইসলাম খান (সিরাজগঞ্জ-৪), ইকবাল হুসেইন (পাবনা-৫), মতিউর রহমান (ঝিনাইদহ-৩), সৈয়দ আবদুল্লাহ মো. তাহের (কুমিল্লা-১১), হামিদুর রহমান আজাদ (কক্সবাজার-২), শামসুল ইসলাম ( চট্টগ্রাম-১৫)।
    আবু সাঈদ মুহাম্মদ শাহাদত হোসাইন (যশোর-২), আব্দুল ওয়াদুদ (বাগেরহাট-৩), আবদুল আলিম (বাগেরহাট-৪), মিয়া গোলাম পরওয়ার (খুলনা-৫), আবুল কালাম আযাদ (খুলনা-৬), রবিউল বাশার (সাতক্ষীরা-৩), আব্দুল খালেক (সাতক্ষীরা-২), গাজী নজরুল ইসলাম (সাতক্ষীরা-৪), শামীম সাঈদী (পিরোজপুর-১), ফরিদ উদ্দিন চৌধুরী (সিলেট-৫), হাবিবুর রহমান (সিলেট-৬) ও শফিকুর রহমান (ঢাকা-১৫)।
    ২০১৩ সালের ১ আগস্ট জামায়াতে ইসলামীর নিবন্ধন বাতিল ও অবৈধ ঘোষণা করে রায় দেন হাইকোর্ট। গত ২৮ অক্টোবর জামায়াতের নিবন্ধন বাতিল করে প্রজ্ঞাপন জারি করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তাই দল হিসেবে নির্বাচন করার সুযোগ নেই জামায়াতের। তবে জামায়াত নেতারা স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে কিংবা নিবন্ধিত অন্য কোনো দলের প্রার্থী হয়ে সেই দলের প্রতীক নিয়ে নির্বাচন করতে পারবেন। এ বিষয়ে ৯ নভেম্বর ইসি সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, অনিবন্ধিত কোনো দল নিবন্ধিত কোনো দলের সঙ্গে জোটগতভাবে নির্বাচন করতে চাইলে ইসির কিছু করার থাকবে না। এই বিষয়ে আইনে কোনো ব্যাখ্যা নেই।

    স্মিথের নিষেধাজ্ঞা না-ওঠার সুবিধা পাচ্ছে কুমিল্লা


    স্মিথের নিষেধাজ্ঞা না-ওঠার সুবিধা পাচ্ছে কুমিল্লা

    স্মিথের খেলা নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লার কোচ মোহাম্মদ সালাউদ্দিন, ‘হ্যাঁ, সে এবার আমাদের দলে খেলবে। আমরা তাকে প্রথম চারটি ম্যাচে পাব না। আশা করি বাকিটা সময় পাওয়া যাবে।’
    স্মিথের অন্য ব্যস্ততার কারণে প্রথম চার ম্যাচে তাঁকে পাবে না কুমিল্লা। তবে বিপিএলের ২০১৫ সালের চ্যাম্পিয়নরা এই ভেবে খুশি থাকতে পারে, ভাগ্যিস স্মিথের নিষেধাজ্ঞা আগেই উঠে যায়নি। কদিন আগে শোনা গিয়েছিল, স্মিথ-ওয়ার্নারকে দ্রুত জাতীয় দলে ফেরাতে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ কমাচ্ছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া। সেই নিষেধাজ্ঞা উঠে গেলে, কে জানে, ভারতের বিপক্ষে অস্ট্রেলিয়ার চলমান সিরিজেই হয়তো ব্যস্ত হয়ে পড়তেন। অন্তত বিগ ব্যাশে তো খেলতেই পারতেন। নিষেধাজ্ঞা না ওঠায় বিগ ব্যাশেও খেলা হবে না স্মিথ-ওয়ার্নারের। ডেভিড ওয়ার্নারকে আগেই দলে ভিড়িয়েছে সিলেট সিক্সার্স।স্মিথ-ওয়ার্নার দুজনই খেলতে আসছেন বিপিএল। ছবি: প্রথম আলোস্মিথ-ওয়ার্নার দুজনই খেলতে আসছেন বিপিএল। ছবি: প্রথম আলোগত বিপিএলের ফাইনালে সেঞ্চুরি করা ক্রিস গেইলকে অনেক আগ থেকেই চুক্তি করে রেখেছে রংপুর রাইডার্স। রংপুর এবার দলে ভিড়িয়েছে আরেক বিস্ফোরক ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্সকেও। প্রোটিয়া ব্যাটসম্যানকে কেবল শুরুর দিকের কিছু ম্যাচে পাচ্ছে রংপুর। রংপুরের হয়ে এবার খেলতে আসছেন ইংলিশ মারকুটে ব্যাটসম্যান অ্যালেক্স হেলসও।
    বিপিএলে বড় তারকা আছে আরও অনেকেই। ঢাকা ধরে রেখেছে কাইরন পোলার্ড ও সুনীল নারাইনকে। তারকাসমৃদ্ধ বিপিএলের নতুন সংযোজন স্মিথ। স্মিথ ঠিক কত টাকায় কুমিল্লায় নাম লিখিয়েছেন, এখনো জানা যায়নি। তবে তাঁর জাতীয় দলের সতীর্থ ওয়ার্নারের পারিশ্রমিক যদি ৩ কোটি টাকা ছুঁইছুঁই হয়, স্মিথেরও সেটির চেয়েও কম হওয়ার কথা নয়।
    ৫ জানুয়ারি শুরু হওয়ার কথা বিপিএলের ষষ্ঠ পর্ব। কুমিল্লার প্রথম ম্যাচ ৬ জানুয়ারি।

    Friday, 23 November 2018

    ডিলেট হয়ে যাওয়া ছবি খুব সহজেই ফিরিয়ে আনুন, সফটওয়্যার ছাড়া।☑



    বন্ধুরা আজকে আমরা দেখব যে কিভাবে আপনার হারিয়ে যাওয়া ছবি, অর্থাৎ ডিলিট হয়ে যাওয়া ফটো এবং ফাইলস খুব সহজে ফিরিয়ে আনতে পারবেন ।ফাইল ম্যানেজার এ ছোট্ট একটি ট্রিকস কাজে লাগিয়ে কোন প্রকার অ্যাপস ছাড়া। তো সবাই কমবেশি মোবাইলএ ছবি তোলা বা স্ক্রিনশট নিয়ে থাকি। অনেক সময় ছবিগুলো ইচ্ছাকৃত ডিলিট হয়ে যায়। অথবা অনিচ্ছাকৃত ডিলিট হয়ে যায়, পরে যদি সেগুলো রিকভারি করতে চাই তাহলে বিভিন্ন সফটওয়্যার দরকার হয়। কিন্তু আজকের পর থেকে আর সফটওয়্যার লাগবে না, নির্দিষ্ট একটি ফোল্ডারে সবকিছু থাকে, যেগুলো আমরা দেখতে পায় না। তাহলে নিচের স্ক্রিনশট দেখে নিন কিভাবে পাবেন ডিলিট হয়ে যাওয়া ছবি গুলো
    (আর হ্যা মাথায় রাখবেন রেজুলেশন কিন্তু আগের থেকে অনেকটা কমে যাবে ।কিন্তু একটা কথা ভাবুন তো? দরকারি কোন ছবি বা ফাইলটি লো কোয়ালিটি থাকলেও পাওয়াটা খুব জরুরি হয়ে পড়ে। তাছাড়া এপস দিয়ে রিকোভারি করলেও অনেক ছবি রেজুলেশন কমে যায়)
    …………………..
    ফাইল ম্যানেজার ওপেন করুন

    এখন ফোন মেমোরিতে যান

    এবার শো হিডেন ফাইল অন করে দিন

    দেখুন থাম্বেল নামে একটি হিডেন ফোল্ডার পাবেন

    তবে মোবাইল ভেদে DCIM এই ফোল্ডার এর মধ্যেও থাকতে পারে।
    দেখুন আমার এখানে ২৮০০+ ইমেজ আছে

    এখন আপনি চাইলে ফোল্ডারটি শো করে রাখতে পারেন সে ক্ষেত্রে . dot-t কেটে দিতে হবে রিনেম করে তারপর আবার হিডেন প্রোফাইল এনাবেল করে দিন।

    বি দ্রঃ-
    অনেকেই বলতে পারেন যে সো হিডেন ফাইল এটা তো আমি জানি। তাহলে আমি বলব আপনি কি কখনো আপনার মোবাইল থেকে ছবি ডিলিট হয়ে যাওয়ার পর, মাথায় হাত কিংবা হায় হায় করা ছাড়া কখনো এই টিপসটি কাজে লাগিয়েছেন ।উত্তর আসবে না !তাই আপনাকে মনে করিয়ে দিলাম,আর যারা জানেন না তারা তো জেনেই গেল। বেশিরভাগ লোকেই ছোট্ট এই কাজটি জানেনা।
    (কোন প্রকার ভুল করে থাকলে মাফ চাচ্ছি ছোট ভাই হিসাবে-।)
    ধন্যবাদ পোষ্টটি এতক্ষণ কষ্ট করে পড়ার জন্য।উপকৃত হলে পোষ্টে একটি লাইক👍 দিয়ে যান,যদি একটু সময় আপনার হাতে। কারন আমার ধারনা মতে লাইক দিতে হাত ব্যাথা করেনা।